মাইক্রো জব কি ? মাইক্রে জব সাইট (Micro Job Site) থেকে রিয়াল ইনকামের পদ্ধতি সমূহ

Micro Job Site

অনলাইনে অনেক মাইক্রো জব (Micro Job Site ) সাইট রয়েছে। কোন সাইট ট্রাস্টেট আবার কোন সাইট ট্রাস্টেট নয়। আমি এমন একটি ট্রাস্টেট সাইট নিয়ে আলোচনা করবো, যেখানে কাজ করলে হান্ডেড পারসেন্ট পেমেন্ট পাবেন। অনেকে আমরা অনলাইন থেকে ইনকাম করতে আগ্রহী। কিন্তু আমরা জানি না কিভাবে অনলাইন থেকে ইনকাম করতে হবে। অনলাইন থেকে ইনকাম করতে হলে আপনার স্কিল ডিভোলপ করতে হবে। অর্থাৎ অনলাইন সম্পর্কে মোটামুটি ধারনা বা সঠিক কাজ জানা থাকতে হবে এবং ইংরেজি জানা থাকতে হবে। মাইক্রো জব সাইট গুলোতে ছোট ছোট কাজ পাওয়া যায়। এখানে ছোট ছোট কাজ করে সহজে ইনকাম করতে পারবেন। মাইক্রো জব সাইট গুলোতে আপনি পার্ট টাইম কাজ করে ভালো পরিমান আয় করতে পারবেন। আজকে আমি মাইক্রো জব সাইট থেকে ইনকাম করার আদ্দোপান্ত তুলে ধরার চেষ্টা করবো।

মাইক্রো জব (Micro Job) কি :

মাইক্রো জব হচ্ছে – মাইক্রো অর্থ ছোট আর জব অর্থ চাকুরী বা কাজ। তাই মাইক্রো জব বলতে ছোট ছোট কাজ করে আয় করাকে মাইক্রো জব বলে। মাইক্রো জব সাইট গুলোতে কাজ করতে হলে বড় কোন কাজের স্কীল প্রয়োজন হয় না। মোটামুটি ফেসবুক, ইনস্টিাগ্রাম, টুইটার, লিংকদিন, ইউটিউব সম্পর্কে ধারনা থাকলে কাজ গুলো সহজে করতে পারবেন। এখানে লাইক, কমেন্টস, সাবস্ক্রাইব, ভিডিও দেখা, ডাউনলোড করা, রেজিষ্ট্রেশন করা ইত্যাদি কাজ করে ইনকাম করতে পারবেন। এখানে দিনে ৪/৫ ডলার অনায়াসে ইনকাম করতে পারবেন। সময় বেশি দিলে আরো বেশি ইনকাম করতে পারবেন। নতুনদের জন্য মাইক্রো জব সাইট গুলোতে কাজ করে ইনকাম করার অভিজ্ঞতা নিয়ে বড় বড় কাজ গুলোতে যাওয়া উচিত।

মাইক্রো জব করতে কি কি প্রয়োজন :

মাইক্রো জব কাজ হচ্ছে বিগানারদের জন্য। যারা অনলাইনে নতুন ইনকাম করতে চাচ্ছেন তাদের জন্য মাইক্রো জব কাজ। প্রতিটি কাজ করতে যেমন কিছু ইকুইপমেন্ট প্রয়োজন হয়। তেমনি মাইক্রো জব সাইটে কাজ করতে কিছু ইকুইপমেন্ট বা ডিভাইসের প্রয়োজন পড়ে। ডিভাইস গুলো হচ্ছে :

১. কম্পিউটার, ল্যাপটপ বা স্মার্টফোন থাকতে হবে।

২. ইন্টারনেট কানেকশন থাকতে হবে। হতে পারে ব্রডব্যান্ড কানেকশন বা ওয়াইফাই কানেকশন।

৩. যথাপোযুক্ত ট্রাস্টেট সাইট অর্থাৎ ভালো মানের মাইক্রো জব সাইট হতে হবে।

পড়ুন :

কিভাবে ডাটা এন্ট্রি করবেন

কিভাবে মোবাইল দিয়ে ইউটিউব চ্যানেল খোলবেন

মাইক্রো জব সাইটে (Micro Job Site) রেজিষ্ট্রেশন পদ্ধতি :

মাইক্রো জব সাইট থেকে ইনকাম করার জন্য যে সাইটের নাম বলবো সে সাইটের নাম হলো ’অনলাইন মাইক্রো জবস ডট কম‘। সাইটের লিংক https://www.onlinemicrojobs.com . যে কেউ এই সাইটে রেজিষ্ট্রেশন করে ইনকাম করতে পারবেন। এই সাইটে রেজিষ্ট্রেশন করতে হলে প্রথমে কোন ব্রাউজার ওপেন করে উপরের লিংকটি বসে এন্টার চাপুন। তাহলে নিচের মতো ইন্টারফেস দেখতে পাবেন।

online micro job :

online micro job

এই ইন্টারফেসে আপনার ইউজার নেম বসাবেন অর্থাৎ আপনার নাম বা আপনার পছন্দমত একটি নাম এবং একটি ইমেইল দিবেন। তারপর নিচের ঘরে টিক দিন। ক্যাপচা পুরুন করুন অর্থাৎ I am not a robot ঘরে টিক চিহ্ন দিন। তারপর Create Account Now এ ক্লিক করুন। আপনার একাউন্ট তৈরি হয়ে গেল। এখন আপনার ইমেইলে একটি ইমেইল যাবে। ইমেইলটির লিংক একটিভ করুন। এবার ইমেইল এবং আপনার ইমেইলে দেওয়া পাসওয়ার্ড দিয়ে লগিন করুন। এবার বিভিন্ন ক্যাটাগরির জব দেখতে পাবেন। এখান থেকে ভিউ জবে ক্লিক করুন। এবার অসংখ্য কাজ দেখতে পাবেন। এখান থেকে আপনার পছন্দমত কাজ গুলো করে ক্লাইন্টকে জমা দিন। বিভিন্ন কাজের বিভিন্ন রেট দেওয়া আছে। আপনি যত কাজ করবেন ততো ইনকাম করতে পারবেন।

মাইক্রো জব সাইটে কি কি কাজ পাওয়া যায় :

মাইক্রো জব সাইটে বিভিন্ন রকমের কাজ পাওয়া যায়। আগেই উল্লেখ করেছি মাইক্রো জব সাইটে ছোট ছোট কাজ পাওয়া যায়। এখানে ছোট ছোট কাজ করে ইনকাম করা যায়। তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য কাজ গুলো হচ্ছে।

১. সাইন আপ করা :

অনলাইনে যারা আগমন করে তারা সাইন আপ করা জানেন। নিশ্চয় আপনার একটি ফেসবুক আইডি রয়েছে। সেটা সাইন আপ করেছেন তেমনি আপনাকে বিভিন্ন সাইটে সাইন আপ করতে হবে। তবে বিভিন্ন সাইটে সাইন আপ করার কিছুটা ভিন্নতা থাকতে পারে। সেটা দেখে শুনে সাইন আপ করতে হবে। সঠিক ভাবে সাইন আপ করতে পারলে মাইক্রো জব সাইট থেকে আপনি একটি নির্দিষ্ট পরিমান এমাউন্ট ইনকাম করতে পারবেন।

২. ডাউনলোড করা :

ডাউনলোড করা হচ্ছে কোন এ্যাপ ডাউনলোড করা, কোন ভিডিও ডাউনলোড করা বা কোন নির্দিষ্ট টপিক ডাউনলোড করা ইত্যাদি ধরনে সফটওয়ার ডাউনলোড করতে হবে। ক্লায়েন্টের নির্দেশনা মোতাবেক ডাউনলোডকৃত ফাইলের লিংক বা ডাউনলোডকৃত সফটওয়ার আপলোড করে প্রেরন করতে হবে। এর জন্য একটি নির্দিষ্ট পরিমান এমাউন্ট পাবেন।

৩. ফেসবুকে লাইক, কমেন্টস বা পোষ্ট করা :

ফেসবুকে লাইক, কমেন্টস বা পোস্ট করা আমরা জানি। কোন ছবি ভালো লেগে থাকলে তাতে আমরা লাইক দিয়ে থাকি বা কোন ভাল মন্দ কমেন্টস করে থাকি। এছাড়া সময়ে সময়ে বিভিন্ন পোষ্ট দিয়ে থাকি। মাইক্রো জবেও ক্লায়েন্ট এই রকম নির্দিষ্ট কোন পোষ্টে লাইক দিতে বলবে বা কমেন্টস করতে বলবে। এছাড়া কোন নির্দিষ্ট কোন টপিকের উপর পোস্ট দিতে বলতে পারে। মাইক্রো জব থেকে এই রকম লাইক, কমেন্টস বা পোষ্ট দিয়ে ইনকাম করতে পারবেন।

৪. ইউটিব সাবস্ক্রাইব করা :

ইউটিউব সম্পর্কে কম বেশি আমরা সবাই জানি। ইউটিউবে বিভিন্ন রকমের ভিডিও দেখা যায়। ইউটিউবের ভিডিও ভালো লেগে থাকলে তাতে লাইক, কমেন্টস করে থাকি এবং সাবস্ক্রাইব করে থাকি। ক্লাইন্ট এই রকাম কোন নির্দিষ্ট ভিডিওতে লাইক দিতে বলতে পারে বা কোন চ্যানেলকে সাবস্ক্রাইব করতে বলতে পারে। এই রকম কোন চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করে মাইক্রো জব সাইট থেকে ইনকাম করতে পারবেন।

৫. সার্ভে কাজ করা :

সার্ভে করা মানে কোন কাজের জরিপ করা। ক্লাইন্ট আপনাকে কোন সাইটের সার্ভে বা কোন কাজের সার্ভে করতে দিতে পারে। এই সার্ভে বা জরিপ করার জন্য একটি নির্দিষ্ট পরিমান এমাউন্ট দিবে। মাইক্রো জব সাইটে বিভিন্ন রকমের সার্ভে বা জরিপ করার কাজ পাবেন। যেমন : কোন ওয়েবসাইট জরিপ করা, কোন ডকুমেন্ট জরিপ করা ইত্যাদি। মাইক্রো জব সাইট থেকে এই রকম সার্ভে কাজ বা জরিপ করে ইনকাম করতে পারেন। এছাড়াও বিভিন্ন রকমের কাজ মাইক্রো জব সাইটে করতে পারবেন।

পড়ুন :

কিভাবে ফেসবুক থেকে ইনকাম করা যায়।

সিপিএ মার্কেটি করে আয় করুন

শেষ কথা :

পরিশেষে কথা হচ্ছে মাইক্রো জব সাইট (Micro Job Site) গুলোতে কাজের স্কিল বেশি প্রয়োজন পড়ে না। যে কেউ ইচ্ছা করলে কাজ করে ভালো পরিমান ইনকাম করতে পারে। অনলাইন সম্পর্কে একটু ভালো ধারনা থাকলেই চলবে। এখানে লাইক, কমেন্টস, সাবস্ক্রাইব, রেজিষ্ট্রেশন, ডাউলোড করার মতো কাজ গুলো জানা থাকলেই এই সাইট গুলোতে কাজ করতে পারবেন। যেহেতু এই সাইট গুলোর কাজ ছোট ছোট তাই কাজ গুলোর এমাউন্টও কম। তবে একটু ধর্য ধরে কাজ করলে মোটামুটি ইনকাম করতে পারবেন। কাজের দক্ষতা দেখাতে পারলে বেশি বেশি পরিমান কাজ পাবেন এবং ইনকামের পরিমান আস্তে আস্তে বেড়ে যাবে।

Related posts

Leave a Comment