লিডস জেনারেশন (Leads Generation) কি এবং কিভাবে লিডস জেনারেশন কাজ করা যায়

Lead Generation

অনলাইনে হাজারো কাজের মধ্যে লিডস জেনারেশন ( Leads Generation) একটি গুরুত্বপূর্ন কাজ। লিডস জেনারেশন মূলত: সম্ভাব্য ক্রেতা খোজে বের করে তাদের কাছে প্রোডাক্ট বিক্রি করা। Uncommon প্রোডাক্ট সেল করার জন্য লিডস জেনাশেন করা আবশ্যক। আর এই কাজ করতে হলে বিভিন্ন প্রক্রিয়া অবলম্বন করতে হয়। কি কি প্রক্রিয়া বা পদ্ধতিতে কাজ গুলো করতে হয় সে বিষয়ে আলোচনা করবো। প্রশ্ন হচ্ছে লিডস জেনারেশন (Leads Generation) কি এবং কিভাবে লিডস জেনারেশন কাজ করা যায়।

লিডস জেনারেশন কাদের প্রয়োজন :

লিডস জেনারেশন তাদের প্রয়োজন যারা প্রোডাক্ট কোম্পানী বা হোলসেলার। যেমন : সেমেন্ট, রড কোম্পানী, পোষাক কোম্পানী, ইলেক্ট্রনিক কোম্পানী এ ধরনের বিভিন্ন কোম্পানী। এছাড়া Uncommon প্রোডাক্ট বিক্রির জন্য। যেমন: লিফট কোম্পানী, এক্সেরে মেসিন, বিভিন্ন ডাইস যন্ত্র-পাতি কোম্পানী প্রভৃতি কোম্পানীর জন্য লিডস জেনারেশন করা প্রয়োজন।

লিডস জেনারেশন (Leads Generation) কি :

লিডস মানে হচ্ছে সম্ভাব্য ক্রেতা বা সম্ভাব্য ক্রেতার ইনফরমেশন। আর কোন প্রোডাক্টের সম্ভাব্য ক্রেতা খোজে বের করাই হচ্ছে লিডস জেনারেশন। লিডস জেনারেশন হচ্ছে কোন প্রোডাক্টের বিপনন বা মার্কেটিং করার জন্য যে প্রক্রিয়া গুলো অবলম্বন করা হয় তাকে লিডস জেনারেশন বলা হয়। যেমন : বায়ারের নির্দেশ মোতাবেক কোন প্রোডাক্ট সেল বা বিক্রির জন্য কোন কোম্পানীর নাম, মালিকের নাম, ঠিকানা, মোবাইল নম্বার, ইমেইল এড্রেস, ওয়েবসাইট এড্রেস, সোসাল লিংক ইত্যাদি কালেক্ট করে প্রোভাইড করাই হচ্ছে লিডস জেনারেশন। সহজ কথায় বলা যায় কাঙ্খিত প্রোডাক্ট সেল করার জন্য টার্গেটকৃত প্রতিটি তথ্যই এক একটি লিডস। আর কোন কোম্পানী বা হোলসেলার বা টার্গেটকৃত ব্যক্তির তথ্য কালেক্ট করা বা খোজে বের করাই হচ্ছে লিডস জেনারেশন।

কিভাবে লিডস জেনারেশন করা যায় :

লিডস জেনারেশন মূলত: দুই ভাবে করা যায়। এক, বিজনেস থেকে বিসনেস ( B2B) , দুই, বিজনেস থেকে কাষ্টমার (B2C)। এই দুই প্রকারের লিডস জেনারেশনের বর্ননা নিচে বিস্তারিত আলোচনা করা হলো।

১. বিজনেস থেকে বিসনেস (B2B) :

কোন এক কোম্পানী আরেক কোম্পানীর সাথে কোন প্রোডাক্ট সেল জেনারেট করার লক্ষ্যে তথ্য সংগ্রহ করা হচ্ছে বিজনেস থেকে বিসনেস বা B2B লিডস জেনারেশন। যেমন : কোন ফ্রিজ কোম্পানী কোন শোরুমের মালিকের মাধ্যমে সেল জেনারেট করলে তা হচ্ছে বিসনেস থেকে বিসনেস বা B2B লিডস জেনারেশন

২. বিজনেস থেকে কাস্টমার (B2C) :

কোন কোম্পানী সারাসরি কোন প্রোডাক্ট কাস্টমারের নিকট সেল জেনারেট করার লক্ষ্যে তথ্য সংগ্রহ করা হচ্ছে বিজনেস থেকে কাস্টমার বা B2C লিডস জেনারেশন। যেমন : কোন ফ্রিজ কোম্পানী সারাসরি কোন ভোক্তার নিকট ফ্রিজ বিক্রয় করল। তখন তা হচ্ছে বিজনেস থেকে কাস্টমার বা B2C লিডস জেনারেশন।

লিডস জেনারেশন (Leads Generation) কাজ প্যাক্টিক্যালি কিভাবে করা হয় :

লিডস জেনারেশনের কাজ বিভিন্ন ভাবে করা যায়। এর জন্য ওয়েব রিসার্চ সম্পর্কে মোটামুটি ধারনা থাকতে হবে। ওয়েব রিসার্চ সম্পর্কে জানতে হলে এই লিংকে ক্লিক করে দেখে আসতে পারেন। ক্লিক করুন : https://www.ictcorner.com/web-research/ . আজকে আমরা যে বিষয় সম্পর্কে জানবো তা হচ্ছে, ধরুন বায়ার আপনাকে বললো নিউ ইয়ার্ক শহরের রিয়াল ইস্টেটের এজেন্টদের তথ্য খোজে দিন। তাদের ফাস্ট নেম, লাস্ট নেম, ওয়েবসাইট নেম, মোবাইল নম্বার, ইমেইল এড্রেস, সোসাল লিংক, খোজে বের করে দেন। এই কাজটি কিভাবে করতে হবে তা তুলে ধরার চেষ্টা করবো। এর জন্য আপনাকে কি করতে হবে ? yelp.com সফটওয়ারে সাহায্য নিতে হবে। কোন সার্চ বারে https://yelp.com লিখে সার্চ করুন। তারপর রেজিষ্ট্রেশন করুন। তারপর লগিন করুন। নিচের মতো একটি পেজ দেখতে পাবেন।

Yelp : yelp.com

এখানে লাল ঘর করা Find এর জায়গায় Real Estate Agents এবং পাশের ঘরে New York NY লিখে সার্চ করুন। তারপর দেখবেন অসংখ্য এজেন্টসদের নাম দেখবেন। নিচের দিকে এসে all results এর নিচে 1. 2. 3. সিরিয়াল অসংখ্য এজেন্টদের নাম দেখতে পাবেন। তার নামের উপর ক্লিক করুন। দেখবেন একটা পেজ আসবে তাতে ডান সাইডে ওয়েবসাইট নেম, মোবাইল নম্বার দেখতে পাবেন।

Agents : Agents

এখান থেকে তাদের ফাস্ট নেম, লাস্ট নেম, ওয়েবসাইট নেম, মোবাইল নম্বার নিবেন। এখন ইমেইল এবং সোসাল সাইট কিভাবে পাবেন। এটা পেতে হলে উনার ওয়েবসাইট অন্য একটি টেবে ওপেন করুন। দেখবেন তাদের Contact পেজের ভিতর তাদের ইমেইল এড্রেস আছে। তারপর দেখবেন ওয়েব সাইটে উপরে বা নিচের দিকে কোথাও না কোথাও ফেসবুক লোগো দেখতে পাবেন। তাতে ক্লিক করুন। দেখবেন তাদের ফেসবুক পেজে নিয়ে যাবে। সেখানে থেকে সোসাল লিংক কালেক্ট করবেন। আর একটি কথা Contact পেজের মধ্যে ইমেইল এড্রেস না পেয়ে থাকলে ফেসবুক পেজের মধ্যেে ইমেইল এড্রেস পেয়ে যাবেন। এভাবে তথ্য গুলো কালেক্ট করে একটা গুগুল স্পেডশীডের মাধ্যমে উপস্থাপন করুন এবং বায়ারকে প্রোভাইড করুন। গুগুল স্পেডশীটের নমুনা নিচে দেওয়া হলো।

Screen Short : Screenshot_2

উপরে গুগুল স্পেডশীটের মাধ্যমে কাজটি বায়ারে নিকট কিভাবে জমা দিতে হবে তার নমুনা তুলে ধরা হলো। drive.google.com যেয়ে এই রকম একটি স্পেডশীডের মাধ্যমে কাজটি তৈরি করে বায়ারের কাছে লিংক প্রোভাইড করুন। আশা করি yelp.com সফটওয়রের মাধ্যমে এই রকম কাজের লিডস জেনারেশন কাজ করে জমা দিতে পারবেন।

সর্বপরি কথা হচ্ছে লিডস জেনারেশন ( Leads Generation ) কাজের নির্দিষ্ট কোন নিয়ম নেই। আপনার নিজের যত গুলো কৌশল আপনি ব্যবহার করতে পারবেন তত বেশি সফল লিডস জেনারেশন করতে পারবেন। তবে এজন্য আপনাকে ওয়েব রিসার্চ সম্পর্কে ভালো ধারনা থাকতে হবে। লিডস জেনারেশন কাজ খুব একটা কঠিন তা কিন্তু না। আপনাকে গুগুল সার্চ ইন্জিনসহ বিভিন্ন সার্চ ইন্জিন সম্পর্কে জ্ঞান রাখতে হবে। ফেসবুক সম্পর্কে ভালো ধারনা থাকতে হবে এবং ইন্টারনেট সম্পর্কে জ্ঞান থাকতে হবে। আর বায়ারের ইনেস্ট্রাকশন মোতাবেক কাজ করে জমা দিতে পারলেই হলো। লিডস জেনারেশন কাজটি মূলত: প্রোডাক্ট সেলের উদ্দেশ্যে সম্ভাব্য ক্রেতার তথ্য কালেক্ট করা। যাতে সেই তথ্যের ভিত্তিতে ফলোয়াপ করে প্রোডাক্ট সেল জেনারেট করা যায়।

Related posts

Leave a Comment