ব্লগার ডট কম দ্বারা কিভাবে ফ্রি ব্লগ ( Free Blog ) সাইট তৈরি করা যায়

Free Blog 2

অধুনা বিশ্বে প্রতিটি ব্যক্তি এবং প্রতিষ্ঠানের একটি ব্লগসাইট বা ওয়েবসাইট থাকা প্রয়োজন। সেটা ফ্রি ব্লগ ( Free Blog ) সাইট হোক বা পেইড সাইট হোক। যা নিজের ভাবমূর্তি উজ্জল করবে। যার মাধ্যমে একে অপরের সাথে ভাব বিনিময় করা সম্ভব হবে। প্রতিটি শিক্ষিত ব্যক্তিই চায় তার একটি ওয়েবসাইট বানাতে কিন্তু সঠিক ধারনা না থাকায় সম্ভবপর হয়ে উঠে না। তাই আজ আমি কিভাবে একটি ফ্রি ব্লগসাইট বা ওয়েব সাইট তৈরি করা যায় সে বিষয় নিয়ে আলোচনা করবো। আসুন জেনে নিই ব্লগার ডট কম দ্বারা কিভাবে ফ্রি ব্লগ সাইট তৈরি করা যায়।

ব্লগ সাইট বা ওয়েব সাইট তৈরি করতে কি কি লাগে :

ব্লগসাইট বা ওয়েবসাইট বিভিন্ন প্লাটফর্মের মাধ্যমে তৈরি করা যায়। ব্লগার ডট কম, ওয়ার্ডপ্রেস ডট কম, ওয়েবলি ডট কম ইত্যাদি সাইট দ্বারা ওয়েবসাইট তৈরি করা যায়। তার মধ্যে ব্লগার ডট কম এবং ওয়ার্ডপ্রেস ডট কম জনপ্রিয়। এখানে ব্লগার ডট কম প্লাটফর্মে কিভাবে ওয়েব সাইট তৈরি করা যায় তা আলোচনা করবো। প্রশ্ন হচ্ছে একটি ব্লগ সাইট বা ওয়েব সাইট তৈরি করতে কি কি জিনিস লাগে। একটি ব্লগসাইট বা ওয়েবসাইট তৈরি করতে ৫টি জিনিসের প্রয়োজন হয়। তা নিচে তুলে ধরা হলো।

১. ডোমেন নেম :

ডোমেন নেম হচ্ছে একটি সাইট কি নামে হবে তার নাম। নামের শেষে .com, .net, .org, .me, .xyz, প্রভৃতি যুক্ত হয়। এই নামেই সাধারনত ইউ আর এল হয়ে থাকে। তাই আপনার সাইটের নাম কি হবে। তা ভেবে চিন্তে ঠিক করা উচিত। ডোমেন নেম সংক্ষিপ্ত হওয়া ভালো। যাতে সহজে যে কেউ বলতে পারে বা মুখস্ত রাখতে পারে। ডোমেন নেম বিভিন্ন দামের হয়ে থাকে। ২০০ টাকা থেকে শুরু করে ১০০০ টাকা পর্যন্ত হয়ে থাকে। সাধারনত .com, .net, .org, এর দাম একটু বেশি হয়ে থাকে। তবে .xyz ডোমেন কম দামে পাওয়া যায়।

২. হোস্টিং :

হোস্টিং হচ্ছে সার্ভারে আপনার সাইটের সমস্ত তথ্য যেখানে রাখা হবে তার স্থান। অনলাইনে আপনার কন্টেন্ট, ইমেজ, ভিডিও , অডিও ইত্যাদি তথ্য রাখার জায়গাকে হোস্টিং বলা হয়ে থাকে। যত এম বি বেশি হবে ততো তথ্য রাখার স্থান পাবেন। কম এম বি হলে কম তথ্য রাখার স্থান পাবেন। তবে হোস্টিং কিনতে হবে ভালো কোনো কোম্পানী দেখে। কারন হোস্টিং ভালো হলে আপনার সাইট লোড হতে সময় কম নিবে। যত দ্রুত লোড হবে ততো আপনার ভালো। ভিজিটর বেশি হবে এবং গুগুল রেংক বৃদ্ধি পাবে।

৩. জিমেইল (Gmail) একাউন্ট :

কোন সাইট তৈরি করতে হলে ইমেইল বা জিমেইল একাউন্টের প্রয়োজন হয়। তাই ব্লগার ডট কম প্লাটফর্মে সাইট তৈরি করতে হলে একটি জিমেইল একাউন্ট লাগবে। আপনার জিমেইল একাউন্ট থাকলে ভালো। না থাকলে এই লিংকে ক্লিক করে সহজে একটি জিমেইল একাউন্ট তৈরি করে নিতে পারেন। লিংকটি হলো – https://www.ictcorner.com/email/

৪. টেম্পিলেট বা থিম :

টেম্পিলেট বা থিম হচ্ছে একটি সাইট উপস্থাপন করার মাধ্যম। একটি সাইটের আকার কেমন হবে, তার ট্রাকচার কেমন হবে, তার অবয়ব কেমন হবে ইত্যাদি টেম্পিলেটের মাধ্যমে উপস্থাপন করতে হয়। তাই আপনার সাইটের টেম্পিলিট বা থিম সাইটের ধরন অনুযায়ী হওয়া উচিত। টেম্পিলেট ফ্রি ভার্সনেও পাওয়া যায়। আবার প্রিমিয়াম ভার্সনেও পাওয়া যায়। প্রথমে ফ্রি ভার্সনে ব্যবহার করে দেখতে পারেন। পরে পেইড ভার্সন ব্যবহার করতে পারবেন।

৫. কাস্টমাইজ করা :

কোনো সাইট তৈরি করতে হলে কাস্টমাইজ করা অতিব জরুরী। উপরের ৪টি জিনিস হলেই একটি সাইট তৈরি করতে পারবেন। তবে পাশাপশি কাস্টমাইজ করাও প্রয়োজন। সঠিক ভাবে কস্টমাইজ করা না হলে সাইট ঠিক মতো দেখা যাবে না। আপনার কোন তথ্য কোথায় রাখবেন, সাইটের কালার কেমন হবে, তা কাস্টমাইজের উপরেই নির্ভর করে। তাই যথাযথ ভাবে কাস্টমাইজ করা আবশ্যক।

পড়ুন :

ফেসবুক পেজ তৈরি এবং মার্কেটিং করতে চাইলে লিংকে ক্লিক করুন : https://www.ictcorner.com/facebook-marketing/

কিভাবে ফ্রি ব্লগ (Free Blog) সাইট তৈরি করা যায় :

ব্যক্তিগত বা ব্যবসায়িক কাজের জন্য ব্লগ সাইট তৈরি করতে চাইলে ব্লগার প্লাটফর্মে ফ্রি ব্লগ সাইট তৈরি করতে পারবেন এবং এখান থেকে আয় করতে পারবেন। এখানে গুগুল এডসেন্স এপ্রোভ করতে পারবেন। কিম্বা অন্য কোন কোম্পানীর এড প্রদর্শন করতে পারবেন। এখানে কোন প্রকার কোডিং জ্ঞান ছাড়া আপনার পছন্দমত সাইট তৈরি করতে পারবেন। তবে আমার সাজেশন হচ্ছে অনলাইন থেকে ভালো আয় করতে চাইলে একটি ডোমেন টাকা দিয়ে ক্রয় করা ভালো। ব্লগার হোস্টিং ফ্রি পাবেন। আর ইমেইল ফ্রিতে তৈরি করতে পারবেন। থিমও প্রচুর ফ্রি পাবেন। প্রথমে সম্পূর্ন ফ্রি ব্লগ (Free Blog) সাইট তৈরি করতে পারেন। পরবর্তীতে একটি ডোমেন ক্রয় করে নিবেন। আসুন ফ্রিতে ব্লগ সাইট তৈরি করার পদ্ধতি জেনে নিই।

প্রথমে কোনো ব্রাউজারে গিয়ে www.blogger.com লিখে সার্চ করুন। তারপর নিচের মতো একটি ইন্টারফেস পাবেন।

Blogger : Blogger

এখানে লাল আয়াতাকার ঘরে ক্লিক করুন। তারপর Create New blog থেকে টাইটেলের ঘরে আপনার ব্লগের নাম লিখুন। তারপর নেক্সট বাটনে ক্লিক করুন। তারপর Choose a URL for your blog বা Address ঘরে আপনার ব্লগ সাইটের ইউ আর এল নাম কি হবে তা লিখুন। তা যদি ঠিক থাকে তাহলে সবুজ টিক চিহ্ন দেখতে পাবেন। আর ঠিক না থাকলে লাল লেখায় invalid or not support দেখাবে। তাই সঠিক নাম দিয়ে এপ্রোভ হলে সেভ করতে হবে। তারপর যে কোন একটি থিম চয়েছ করুন। তারপর সর্বশেষে Create Blog ক্লিক করলেই অটোমেটিক আপনার ব্লগ সাইট তৈরি হয়ে যাবে।

আপনার ব্লগ সাইট তৈরি হয়ে গেলে সাইটকে কাস্টমাইজ করতে হবে। আপনার থিমকে রিসাইজ করে নিতে হবে। আপনার সাইটের মধ্যে কোথায় কি থাকবে, সাইটের কালার কেমন হবে, যাবতীয় তথ্য সেট করে নিয়ে আপনার সাইটকে রান করুন। ব্লগার ডট কম প্লাটফর্মে সহজে একটি Free Blog সাইট তৈরি করতে পারবেন। যা অন্য কোন সাইটে এত সহজে তৈরি করতে পারবেন না।

ব্লগার সাইটের বেকিন ড্যাশবোর্ড পরিচিতি :

Backen Dashbord

উপরের চিত্রে নম্বারকৃত তীর চিহ্ন অনুযায়ী তথ্য গুলি বিশ্লেষন করা হলো :

1. New Post : এখানে ক্লিক করলে নতুন পোস্ট লিখার জায়গা আসবে। সেখানে আপনি নতুন পোস্ট করতে পারবেন। এম এস ওয়ার্ড এ যে ভাবে লিখতে পারেন, সেভাবে এখানে লিখতে পারবেন। বোলড, ইটালিক, লেফট, সেন্টার, রাইট সমস্ত কাজ গুলি সেট এখানে করতে পারবেন। ইমেজ, ভিডিও আপলোড করতে পারবেন। লেবেলে ট্যাগ লিখতে পারবেন। পারমালিংক সেটাপ করতে পারবেন। একটি পোস্টের সমস্ত কিছু এখানে করতে পারবেন।

2. Post : এখানে যত গুলো পোস্ট করেছেন তার সব গুলোর তালিকা তারিখ অনুযায়ী দেখা যাবে । পোস্ট গুলো ডিলিট এবং সংশোধন করা যাবে। ভিউ কত দেখা যাবে।

3. Stats : এখানে ক্লিক করে দেখা যাবে কোন পোস্টে কতজন ভিজিটর বা ট্রাফিক আসছে এবং কোথায় থেকে আসছে। কোন মাধ্যম থেকে আসছে, মোবাইল না কম্পিউটার থেকে ইত্যাদি তথ্য জানা যাবে।

4. Comments : কমেন্টস এটা সাধারন বিষয় আমরা জানি কিভাবে কমেন্টস করতে হয়। কোন বিষয়ে মন্তব্য করাই হচ্ছে কমেন্টস। এই কমেন্টস থেকে জানতে পারবেন কোন পোস্টে কতজন কমেন্টস করেছে।

5. Earnings : আর্নিং হচ্ছে আয় করার বিষয়। আপনার পোস্টে এডসেন্স বা অন্য কোন মাধ্যম থেকে আয় আসলে তা এখান থেকে জানতে পারবেন।

6. Pages : পেজেস থেকে আপনার ব্লগে বিভিন্ন সাফাই গাওয় পোস্ট করতে পারবেন। এখান থেকে এবাউট আস, কন্টাক্ট আস, প্রাইভেসি পলিসি বিভিন্ন ধরনের পেজ সম্পর্কে লিখতে পারবেন এবং দেখতে পারবেন।

7. Layout : লেআউট হচ্ছে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ন বিষয়। এই লেআউটের মাধ্যমে আপনার সাইটের ট্রাকচার সাজাতে হবে। কোথায় কি থাকবে তা এই লে আউটের মাধ্যমে সাজাতে হবে। Gadget এর মাধ্যমে পরিবর্তন, সংযোজন এবং বিয়োজন করতে পারবেন।

8. Theme : থিম হচ্ছে ব্লগের প্রান। এই থিমের মাধ্যমে আপনার সাইটের তথ্য গুলো Edit করতে হবে। আপনার সাইটের ডিজাইন পরিববর্তন, পরিবর্ধন, সংযোজন এবং বিয়োজন করা যাবে।

9. Settings : সেটিংস খুব ‍খুব গুরুত্বপূর্ন বিষয়। এই সেটিংস হচ্ছে এস ই ও এর একটি অংশ। এখানে বিভিন্ন কিছু সেট করতে হয় যা আপনার সাইটিকে নিয়ন্ত্রন করে। সাইটের ম্যাটা ডিসক্রেপশনম, ম্যাটা টেগ, সহ বিভিন্ন সেটাপ করতে হয়। একটু ঘাটাঘাটি করেলেই বুঝতে পারবেন। বুঝতে না পারলে ইউটিউবে ‍বিভিন্ন ভিডিও দেখে নিতে পারেন।

10. Reading List : এখানে আপনি যে ব্লগ গুলি সাবস্ক্রাইব করবেন সেগুলোর পোস্ট দেখা যাবে। কোন ব্লগ সাবস্ক্রাইব করা থাকলে গুগুলের বিভিন্ন পোস্টে তা শো করবে।

11. View Blog : ভিউ ব্লগ হচ্ছে আপনার ব্লগের সমস্ত পোস্ট এই ভিউ ব্লগে ক্লিক করলে দেখতে পারবেন। এছাড়া প্রতিটা পোস্ট ভিউ ব্লগে ক্লিক করে দেখতে পারবেন।

ব্লগার সাইটের ফ্রন্ট ড্যাশবোর্ড পরিচিতি :

আপনাদের বুঝার সুবিধার্থে নিম্নে একটি ফ্র্রন্ট ড্যাশবোর্ডের চিত্র তুলে ধরা হলো। এই রকমের একটি ব্লগ সাইট আপনি দেখতে পাবেন। উল্লেখ্য যে থিমের ধরন অনুযায়ী বিভিন্ন রকমের হতে পারে।

Fornt Dashbord

পড়ুন :

কিভাবে ব্লগ সাইটে ভিজিটর বাড়াবেন : https://www.ictcorner.com/blog/

এডসেন্স পেতে হলে দেখুন : https://www.ictcorner.com/adsense/

পরিশেষে কথা হচ্ছে ব্লগার ডট কম একটি অত্যন্ত সাদামাটা ও জনপ্রিয় ওয়েবসাইট তৈরির একটা প্লাটফর্ম। এখানে কোন প্রকার কোডিং জ্ঞান ছাড়াই একটি প্রফেশনাল মানের Free Blog সাইট বা ওয়েব সাইট তৈরি করতে পারবেন। বিশ্বের হাজার হাজার ব্লগাররা এই প্লাটফর্ম ব্যবহার করছে। আপনিও চাইলে ব্লগার ডট কম ব্যবহার করে অতি সহজে একটি ফ্রি ব্লগ (Free Blog) সাইট বা ওয়েব সাইট তৈরি করতে পারেন।

Related posts

One Thought to “ব্লগার ডট কম দ্বারা কিভাবে ফ্রি ব্লগ ( Free Blog ) সাইট তৈরি করা যায়”

Leave a Comment